আওয়ামী লীগ

শাহীনকে ঘিরে জমজমাট ঢাকা-২ আসনের রাজনীতি

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ঢাকা-২ আসনের মনোনয়ন দৌঁড়ে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন শাহীন আহমেদ। তরুণ এ আওয়ামী লীগ নেতার পক্ষে ইতিমধ্যেই ব্যাপক জনমত তৈরি হয়েছে। ঢাকা-২ আসনে তাঁকে প্রার্থী হিসেবে পেতে ব্যাকুল হয়ে উঠছেন কেরানীগঞ্জের নেতাকর্মীরা। একইসাথে যোগ হয়েছেন ঢাকা-২ আসনের অংশ বিশেষ সাভারের ভাকুর্তা, তেতুল ঝড়া, আমীন বাজার ও কামরাঙ্গীর চরের কর্মী সমর্থকরাও।

নির্বাচনের আরো এক বছর সময়কে সামনে রেখেই ভোটের হিসেব-নিকাশ কষতে শুরু করেছেন তারা। ফলে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে শাহীন আহমেদের বাসা এখন পরিণত হয়েছে আওয়ামী লীগের ক্লাব ঘরে।

প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে চলে তার এ কুশল বিনিময়। শুক্রবার কিংবা অন্য কোন বন্ধের দিন হলে দিনভরই থাকে লোক সমাগম। এ যেন এক ভিন্ন আমেজ বিরাজমান তার বাসায়। শুক্রবার তার বাসায় গেলে উপস্থিত নেতাকর্মীরা জানান, সাধারণ জনগণের সাথে মিশুক এমন একজন নেতাকেই তারা তাদের নির্বাচিত প্রতিনিধি হিসেবে দেখতে চায়।

শুক্রবার এলে বাড়ে গণসংযোগ। শাহীন আহমেদকে ঘিরে গড়ে ওঠে জটলা

তারা বলেন, জাতীয় সব আচার অনুষ্ঠানে কিংবা সামাজিক ও পারিবারিক অনুষ্ঠানেও তারা তাদের নির্বাচিত প্রিয় ব্যক্তিটিকে সব সময় কাছে পেতে চায়। এ ধরনের সৌহার্দ্য সম্প্রীতিকে ধরে রেখেই তারা তাদের আগামীর ভবিষ্যৎ গড়তে ও এলাকার উন্নয়ন সমৃদ্ধি ঘটাতে চায়।

এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে শাহীন আহমেদ বলেন, ‘জনগণ সবসময় নেতাদের কাছে পেতে চায়। তাই আমিও সবসময় জনগনের খুব কাছে থেকেই তাদের সেবা দেয়ার চেষ্টা করে আসছি। আমি দিন-রাত তাদের সাথেই আছি।’

তিনি বলেন, কেরানীগঞ্জ ছাড়াও ঢাকা-২ আসনের অংশবিশেষ সাভারের ভাকুর্তা, তেতুল ঝড়া, আমীন বাজার ও কামরাঙ্গীর চরেও আমার যথেষ্ট যোগাযোগ আছে। এখন এ সকল এলাকার নেতাকর্মীরাও আমাকে যথেষ্ঠ ভালোবাসেন। যার দৃষ্টান্ত আমার বাসায় তাদের স্বতঃস্ফুর্ত উপস্থিতি। তাছাড়া ঢাকা-২ আসনের নির্বাচনকে ঘিরে কিছু কিছু ক্ষেত্রে আমিও তাদের ওপর অনেকটা ভরসা রাখি এবং তারাও আমাকে ঘিরে অনেকটা ভরসা পাচ্ছেন।’

One thought on “শাহীনকে ঘিরে জমজমাট ঢাকা-২ আসনের রাজনীতি

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।