এখানে আছে জেলিফিশে ভরা হ্রদ, আর অপরূপ সৌন্দর্যের সমারোহ

দেখলে মনে হবে সমুদ্রের নীল নোনা জলে ভাসছে সবুজে ঘেরা কতগুলো নীল জাহাজ। এগুলো আসলে প্রত্যেকটি একেকটি দ্বীপ। অপরূপ সুন্দর এই দ্বীপরাষ্ট্রটির নাম পালাউ। পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর জায়গাগুলোর মাঝে পালাউ একটি। এখানকার রেইনফরেস্টের অনন্য গাছ-গাছালি, পাখি আর অন্যান্য প্রাণীরা যে কারও চোখ ধাঁধিয়ে দেবে। ১৩০ প্রজাতির হাঙ্গরের আবাস পালাউ এর সমুদ্রের জলসীমায়। তবে এর সবচেয়ে বড় আকর্ষণ হল ২ মিলিয়ন জেলিফিশে পরিপূর্ণ হ্রদ, তবে চিন্তার কিছু নেই। এই জেলিফিশরা সময়ের সাথে সাথে বিষদাঁত ফোটানোর ক্ষমতা হারিয়েছে।

বিভিন্ন আকৃতির ৩০০টি দ্বীপ নিয়ে দ্বীপরাষ্ট্র পালাউ গঠিত। পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরের একটি স্বাধীন প্রজাতান্ত্রিক দ্বীপরাষ্ট্র। মাইক্রোনেশিয়ার অন্তর্গত প্রায় ২০০টি দ্বীপ নিয়ে রাষ্ট্রটি গঠিত। পালাউ বিষুবরেখার কাছে, ফিলিপাইনের প্রায় ৮৫০ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থিত। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে এটি প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপপুঞ্জের জাতিসংঘ ট্রাস্ট এলাকার অন্তর্ভুক্ত হয় এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শাসনাধীনে আসে। ১৯৯৪ সালের অক্টোবর মাসে পালাউ একটি স্বশাসিত রাষ্ট্রে পরিণত হয় এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে এ ব্যাপারে একটি চুক্তিতে পৌঁছে। পালাউ দ্বীপপুঞ্জের কোরোর দ্বীপে অবস্থিত কোরোর শহর দেশটির বৃহত্তম শহর এবং রাজধানী। বাবেলথুয়াপ নামের দ্বীপে নতুন একটি রাজধানী গড়ে তোলা হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।