জোট গঠন করেই আগামী নির্বাচনে যাবেন এরশাদ

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, জোট গঠন করেই আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টি অংশ গ্রহণ করবে। জোটের বিরুদ্ধে কোন কথা বলা যাবে না বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, নির্বাচনী জোটের মাধ্যমে শক্তি অর্জন করে আগামীতে জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য লড়াই করবে।

দলের সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ও জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ বলেছেন, জাতীয় পার্টি এককভাবেই নির্বাচন করে যাতে ক্ষমতায় যেতে পারে তার জন্য যুব সমাজকে প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হবে। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে এবং গ্রামে-গঞ্জে গিয়ে জনগণের কাছে জাতীয় পার্টির কথা তুলে ধরে দলকে শক্তিশালী করতে হবে।

আজ দুপুরে জাতীয় যুব সংহতির ৩৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও সম্মেলন উপলক্ষে আয়োজিত এক যুব সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

এরশাদ বলেন, ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য দলীয় শক্তি প্রয়োজন। প্রতিটি ওয়ার্ডে সংগঠন প্রতিষ্ঠা করতে হবে। দলকে শক্তিশালী করতে পারলেই জাতীয় পার্টি ক্ষমতার দুয়ারে পৌঁছাবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

রওশন এরশাদ বলেন, আগামী দিনে যুবকরাই নেতৃত্ব দিবে। যুব সমাজই হচ্ছে জাতীয় পার্টির মূল শক্তি। নেতৃত্ব দিতে হলে ধৈর্য ও সহ্য থাকতে হবে।

এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, আগামী দিনে জোট গঠন করা ছাড়া আর কোন বিকল্প নেই। তিন শ’ আসনেই জাতীয় পার্টি জোটের প্রার্থী দিয়ে নির্বাচন করবে বলে তিনি সব নেতা-কর্মীদের প্রস্তুতি নেয়ার আহবান জানান।

সভায় হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ যুব সংহতির নতুন কমিটি ঘোষণা করেন। কমিটিতে নতুন সভাপতি হয়েছেন আলমগীর সিকদার লোটন ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন ফখরুল আহসান শাহজাদা।

ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে জাতীয় যুব সংহতির আহবায়ক আলমগীর সিকদার লোটনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, জাতীয় পাটির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।