র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধ

গাজীপুরে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ৪ গরুচোর আটক

গাজীপুরে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ৪ গরু চোর আটক হয়েছে। এ সময় দুইটি গরুও গুলিবিদ্ধ হয়। বৃহস্পতিবার ভোররাতে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মজলিশপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশংকাজনক।

আহতরা হলেন, সিরাজগঞ্জের কাজীপুর থানার দত্তপাড়া গ্রামের মৃত মহর আলীর ছেলে রফিকুল ইসলাম (২০), বরগুনার বেতাগি থানার কলাগাছিয়া গ্রামের আব্দুল মোতালেবের ছেলে আব্দুল জলিল (১৯), ঢাকার মুগদার মান্ডা এলকার রফিকুল ইসলামের ছেলে শাওন (২৮)। গুরুতর আহত ব্যক্তির পরিচয় পাওয়া যায়নি। তার বয়স আনুমানিক ৩৫ বছর।

আহতদের গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

র‌্যাব-১ এর গাজীপুরের কোম্পানি কমান্ডার মো. মহিউল ইসলাম জানান, বুধবার রাতে চোররা গরু চুরি করে ট্রাকে করে হোতাপাড়া এলাকা দিয়ে পালিয়ে যাচ্ছে এমন খবর পেয়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পোড়াবাড়ি এলাকায় ব্যারিকেট দেওয়া হয়। ট্রাকটিকে থামার সংকেত দেয়া হলে অমান্য করে ঢাকার দিকে পালিয়ে যেতে থাকে। পিছন পিছন ধাওয়া করলে তারা গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা হয়ে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক দিয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মজলিশপুরের দিকে পালিয়ে যেতে থাকে। রাস্তা বন্ধ থাকায় মজলিশপুর স্কুলের সামনে গিয়ে ট্রাকটি আটকা পড়ে। এসময় চোরেরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি করে। র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছুড়লে কয়েকজন চোর ট্রাক ফেলে পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে ৩ জন এবং সকালে আশপাশ এলাকায় তল্লাশি করে আরো একজনকেসহ মোট ৪জনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আটক করা হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।