পুলিশের বাধায় জিয়া পরিষদের বুদ্ধিজীবী সমাবেশ পণ্ড

রাজধানীর রমনায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বিএনপিপন্থি বুদ্ধিজীবীদের সংগঠন জিয়া পরিষদের বুদ্ধিজীবী সমাবেশ পুলিশি বাধায় পণ্ড হয়ে গেছে।

আজ শনিবার (১৪ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টায় এ বুদ্ধিজীবী সমাবেশ হওয়ার কথা ছিল। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেওয়ার কথা ছিল বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের। প্রধান বক্তা হিসেবে ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমেদ।

সারাদেশ থেকে জিয়া পরিষদের কয়েকশ’ নেতাকর্মী বুদ্ধিজীবী সমাবেশে হাজির হয়েছিলেন। কিন্তু রমনা থানা পুলিশ সমাবেশস্থলে এসে জানায়, লিখিত অনুমতি ছাড়া কোন ধরনের সমাবেশ করা যাবে না।

সকাল ১১টার দিকে অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত হন প্রধান অতিথি বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আমি এখানে অতিথি হিসেবে এসেছিলাম। এটা কোনো রাজনৈতিক দলের সমাবেশ নয়। পেশাজীবী, বুদ্ধিজীবীদের সমাবেশ ছিল। কিন্তু পুলিশ এই সমাবেশ করতে দিচ্ছে না। কেন জানতে চাইলে তারা বলেছে, অনুমতি নেই।

‘এটা চরম স্বৈরাচারী একটা ব্যবহার’ উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, সারাদেশে তারা এটা করছে। সমস্ত মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে তারা ধ্বংস করে দিচ্ছে।

এটাই বাংলাদেশের এখন সবচেয়ে বড় সমস্যা যে, ভিন্নমতের কোনো মানুষকে, কোনো সংগঠনকে তারা দাঁড়াতে দিচ্ছে না। আজকে এই সরকার ভয়াবহ ফ্যাসিস্ট শক্তিতে পরিণত হয়েছে। এভাবে তারা জনগণের মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে ব্যাহত করছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।