অবশেষে অস্ত্র মামলায় জামিন পেলেন সেই সমর চৌধুরী

শিক্ষানবীশ আইনজীবী সমর কৃঞ্চ চৌধুরী জামিন পেয়েছেন। ষাটোর্ধ্ব সমরকে গ্রেফতারের পর থেকে তার পরিবার দাবি করে আসছিলেন, তাকে লন্ডনপ্রবাসী যুবকের প্ররোচনায় ইয়াবা ও অস্ত্র দিয়ে পুলিশ ফাঁসিয়ে দিয়েছে।

আজ মঙ্গলবার চট্টগ্রামের ভারপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ মুন্সী আব্দুল মজিদ অস্ত্র মামলায় সমরকে জামিনে মুক্তির আদেশ দিয়েছেন। একই আদালত গত ২৪ জুন তাকে ইয়াবা উদ্ধারের মামলায় জামিন দেন।

দুটি মামলায় জামিন পাওয়ার পর সমরের মুক্তিতে আর কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছেন সমরের আইনজীবী গৌতম চৌধুরী পার্থ।

জামিন শুনানিতে চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিনসহ অর্ধশতাধিক আইনজীবী অংশ নেন বলে জানিয়েছেন গৌতম।

গত ২৭ মে চট্টগ্রামের বোয়ালখালী থানা পুলিশ সমরকে নগরীর লালদিঘীর পাড় এলাকা থেকে আটক করে। এরপর তাকে গ্রামের বাড়ি বোয়ালখালী উপজেলার সারোয়াতলী ইউনিয়নের দক্ষিণ সারোয়াতলী গ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়। তার গ্রামের বাড়ি থেকে ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে দাবি করে পুলিশ বোয়ালখালী থানায় দুটি মামলা দায়ের করে। এসব মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয় সমরকে।

গ্রেফতারের পর থেকে সমরের পরিবার দাবি করে আসছিল, তাদের গ্রামের লন্ডণপ্রবাসী যুবক সঞ্জয় দাশের সঙ্গে তার প্রতিবেশি স্বপন দাশের জায়গা-জমি নিয়ে বিরোধ আছে। স্বপন দাশকে আইনি পরামর্শ দেওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে সঞ্জয় দাশ পুলিশকে ব্যবহার করে সমরকে দুটি মামলায় ফাঁসিয়ে দিয়েছেন।

এই গ্রেফতারের ঘটনা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও গণমাধ্যমে ব্যাপক তোলপাড় ওঠে। প্রতিবাদে রাস্তায় নামেন বিভিন্ন শ্রেণীপেশার প্রতিনিধিরা। গত ২ জুলাই সমরের মেয়ে অলকানন্দা চৌধুরী ও তমালিকা চৌধুরী সংবাদ সম্মেলন করে তার বাবার মুক্তি এবং মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতির জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেছিলেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।