ওয়ারিশ সনদ জালিয়াতির মামলায়

ইজি ফ্যাশনের চেয়ারম্যানসহ ১২ জনের ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

ওয়ারিশ সনদ জালিয়াতির মামলায় ইজি ফ্যাশনের চেয়ারম্যান আসাদ চৌধুরীসহ ১২ জনের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

গতকাল বুধবার দুপুরে নরসিংদীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রকিবুল ইসলাম  মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) পরিদর্শক তোফাজ্জল হোসেনের আবেদনের প্রেক্ষিতে তাদের রিমান্ডের আদেশ দেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার অভিযুক্তরা আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিন আবেদন করলে বিচারক তাদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। বাদী পক্ষের আইনজীবী শফিকুল ইসলাম লিখন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আইনজীবী শফিকুল ইসলাম লিখন সাংবাদিকদের জানান, নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ডাঙ্গা ইউনিয়নের কাজৈর গ্রামের বাসিন্দাদের স্থাবর সম্পত্তির নথিপত্র জাল করে সেগুলো হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠে দেশের নামকরা পোশাকের ব্র্যান্ড ইজি ফ্যাশনের স্বত্ত্বাধিকারী আসাদ চৌধুরী, ইসহাক চৌধুরী এবং তৌহিদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে। তারা তিনজন আপন সহোদর ভাই।

এ ঘটনায় ডাঙ্গা ইউপি সদস্য জালাল উদ্দিন কর্তৃক দায়ের করা মামলায় উল্লেখ করা হয়, পলাশ উপজেলার ডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য জালাল উদ্দিনকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেখিয়ে তার সই নকল করে জমি কেনাবেচার নথিপত্র তৈরি করা হয়। প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রেই এমন কারসাজির ঘটনা ঘটেছে। এক পক্ষকে বিক্রেতা দেখিয়ে রেজিস্ট্রিও সম্পন্ন করা হয়। আর সবরকম প্রক্রিয়া শেষ করে সংশ্লিষ্ট জমিতে সাইনবোর্ড টানিয়ে ঘোষণা দেওয়া হয় ক্রয়সূত্রে এই জমির মালিক তিন ভাই। সর্বশেষ চার দলিলেই হাতানো হয়েছে চার বিঘা জমি। যার বর্তমান বাজারমূল্য প্রায় এক কোটি টাকা। পরে ইউপি সদস্য জালাল উদ্দিন এ ঘটনায় পলাশ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন বলেন, অভিযুক্তদের অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতের কাছে আমি ৩ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছি। আদালত আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে।

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।