‘বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো জায়গায় কখনও গুজবের স্থান হতে পারে না’

বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো জায়গায় কখনও গুজবের স্থান হতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

আজ মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) সকালে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে ‘ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের (টিএসসি) মিলনায়তনে আয়োজিত এ সভায় উপাচার্য বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো জায়গায় কখনও গুজবের স্থান হতে পারে না। গুজব ছড়িয়ে আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ভূলুন্ঠিত করার জন্য একটি মহল অপচেষ্টা চালিয়েছিল। যেমনভাবে সম্প্রতি যে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাগুলোর পেছনে অপশক্তি কাজ করেছে, একইভাবে এ অপশক্তিগুলোর মধ্যে কোনও তফাৎ নেই। যারা গুজব এবং মিথ্যাচার অথবা বিভিন্নভাবে অপ-তথ্য প্রচারের মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে অথবা একটি অগ্রগামীতাকে যারা স্তম্ভিত করতে চায়, সে সব অপশক্তিকে সবসময় প্রতিরোধ করতে হবে। চিলে কান নিয়ে গেছে, এমন গুজবের পেছনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ছোটা উচিত নয়।’

শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘তোমরা মেধাবী, কোনটা গুজব আর কোটা সঠিক তা বিবেচনা করার ক্ষমতা তোমাদের আছে। আশা করি, ভবিষ্যতে তা ভেবে কাজ করবে।’

তিনি কোটা সংস্কার আন্দোলনকে কেন্দ্র করে আরও বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা একটি যৌক্তিক দাবির জন্য আন্দোলন করছিল, কিন্তু সে সুযোগকে ব্যবহার করে একটি মহল সন্ত্রাস এবং অপতৎপরতা চালিয়ে আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে নিতে চেয়েছিল। সে অপশক্তির উদ্দেশ্য ছিল বিশ্ববিদ্যালয় এবং দেশকে অস্থিতিশীল করতে পারলে সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করতে পারবে। কিন্তু শিক্ষার্থীদের আমি ধন্যবাদ জানাই, তারা ওই অপশক্তির উদ্দেশ্য বুঝতে পেরেছে। এজন্য তারা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আন্দোলন স্থগিত করেছে।’

আলোচনা সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার এনামুজ্জামানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) ড. নাসরিন আহমাদ। তিনি বলেন, ‘আমাদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস অনেক তাৎপর্যপূর্ণ, যা শুরু হয়েছিল ১৯৫২ সালে এবং শেষ হয়েছিল ১৬ ডিসেম্বর ১৯৭১ সালে।’

আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন ঢাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামাল, কোষ্যাধক্ষ অধ্যাপক কামাল উদ্দীন প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।