বাড়ি-গাড়ি নেই, ক্ষমতা হারিয়ে দলীয় কার্যালয়ের ছোট্ট অতিথি কক্ষে মুখ্যমন্ত্রী

টানা ২০ বছর ধরে মানিক সরকার ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। ভারতের সবচেয়ে গরিব মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন মানিক সরকার। গত ৩ মার্চ অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিজেপির কাছে পরাজিত হয় তার দল। এবার দায়িত্ব ছাড়ার পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রীর বাংলোও ছেড়ে দিলেন তিনি।

ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব আজ শপথ নেবেন। এর আগেই গতকাল বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রীর বাংলো ছেড়ে দিয়েছেন মানিক সরকার। উঠেছেন দলীয় কার্যালয় ভবনের একটি ছোট্ট অতিথি কক্ষে।

২০ বছর ক্ষমতায় থাকলেও নিজের কোনো বাড়ি নেই মানিক সরকারের। মানিক সরকারের বাড়িভর্তি ছিল শখের বই। মুখ্যমন্ত্রীর বেশ কিছু বই তারা দিয়ে দিয়েছেন রাজ্য সরকারের বীরচন্দ্র স্টেট সেন্ট্রাল লাইব্রেরিতে।

শুধু বাড়ি নয়, নিজেদের কোনো গাড়িও নেই মুখ্যমন্ত্রীর। আপাতত পার্টি অফিসের একটা ছোট্ট গেস্ট রুমই হয়েছে ঠিকানা। দলের সভাপতি হিসেবে পার্টি থেকে ব্যয় নির্বাহের জন্য দেয়া হয় কিছু টাকা। সেটা দিয়েই চলবে তার প্রতি মাসের খরচ- এমনটাই জানালেন মানিক সরকারের স্ত্রী পাঞ্চালি।

কোনোদিন সরকারি গাড়ি ব্যবহার করেননি মানিক সরকারের স্ত্রী পাঞ্চালি। রিকশা করে যাতায়াত করেছেন, বাজার করেছেন। নিরাপত্তারক্ষী নিয়ে ঘোরেননি। অন্য পাঁচজন সাধারণ নারীর মতোই সংসার সামলেছেন। ফলে ক্ষমতা হারালেও তার খুব একটা পরিবর্তন হবে না।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।