বিয়ে বাড়িতে উচ্চশব্দে গান, প্রতিবাদ করায় বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যা!

বাসার ছাদে উচ্চ স্বরে গান বাজানোর প্রতিবাদ করায় প্রাণ দিতে হলো এক বৃদ্ধকে। আজ শুক্রবার রাজধানীর আর কে মিশন রোডের একটি বাসায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে এখন পর্যন্ত পাঁচজনকে আটক করেছে।
নিহতের ছেলে নাসিমুল হক জানান, বৃহস্পতিবার রাতে তাদের অ্যাপার্টমেন্টের ছাদে ফ্ল্যাট মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলতাফ হোসেন তার এক আত্মীয়ার গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান করছিলেন। ফ্ল্যাট মালিক সমিতির নিয়ম অনুযায়ী রাত ১২টার পর অনুষ্ঠান করা নিষিদ্ধ হলেও রাত একটার দিকে উচ্চ শব্দে গান বাজানো হচ্ছিলো।
তিনি আরো জানান,  তার বাবা হার্ট ও কিডনির রোগে ভুগছিলেন। গানের উচ্চ শব্দে তিনি ছাদে গিয়ে গান বন্ধ করতে বলেন। তখন গান বন্ধ করে কতিপয় লোক তার বাবার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে। এ সময় উভয়ের মধ্যে তর্কাতর্কি হয়। এরপর শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে বাসার কেয়ারটেকার দিয়ে আলতাফ হোসেন তাকে ও তার স্ত্রী অনিকে ডেকে পাঠান। তারা নিচে গেলে আলতাফ হোসেন, হৃদয়, স্বজীব ও তিন নারীসহ ৭ জন তাদের মারধর করেন। তার বাবা এগিয়ে গেলে তাকেও মারধর করা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তার বাবাকে আজগর আলী হাসপাতালে  নেয়া হলে কতর্ব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুলল্লাহ মেডিকেল কলেজ (মিটফোর্ড) মর্গে পাঠায়।
 নিহতের মেয়ে নাফিসা জানান, তার বাবা ভূমি মন্ত্রণালয়ে চাকরি করতেন। ২০০৫ সালে অবসরে যান। ১১ তলা ওই ভবনের ৮ম তলা তারা কিনে নিয়েছেন। যারা গান-বাজনা করছিল তারা ওই ভবনের কেউ নয়।
ওয়ারী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ সেলিম মিঞা জানান, খুনের ঘটনায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে। মামলায় সাতজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ২/৩ জনকে আসামি করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত আলতাফ, তার মেয়ে ও ছেলেসহ চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অন্যদের ধরতে অভিযান চলছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।