‘নারায়ণগঞ্জে হকার বসবে, এটা আমার নির্দেশ’

নারায়ণগঞ্জ শহরের ফুটপাত থেকে উচ্ছেদ করা পাঁচ হাজার হকারকে আবার ফিরিয়ে আনতে মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীকে ২৪ ঘণ্টার সময় বেঁধে দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য এ কে এম শামীম ওসমান।

শামীম বলেছেন, ‘এটা কোনো অনুরোধ না। নারায়ণগঞ্জে হকার বসবেই।’

পুলিশ যদি হকারদের ওপর লাঠি দিয়ে বাড়ি দেয়, তাহলে সেই বাড়ির জবাব দেয়ার ঘোষণাও দিয়েছেন শামীম ওসমান।

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) বিকালে নারায়ণগঞ্জ চাষাঢ়া গোল চত্বরে হকার সংগ্রাম পরিষদের সমাবেশে বক্তব্য রাখছিলেন শামীম ওসমান। এই সংসদ সদস্যের বক্তব্য শেষে শহরে হকাররা আনন্দ মিছিল বের করেন।

শামীম বলেন, ‘আগামীকাল (মঙ্গলবার) বিকাল সাড়ে চারটার মধ্যে সিটি করপোরেশন, সিটি করপোরেশনে যারা দায়িত্বে রয়েছেন, পুলিশ প্রশাসন ও দোকান মালিক সমিতি মিলে সিদ্ধান্ত দেবেন কিভাবে হকার বসবে। আর যদি না পারেন, তাহলে আগামীকাল বিকাল সাড়ে চারটার পর নারায়ণগঞ্জে হকার বসবেই।’

‘এটা আমার আদেশ না, হুকুম না, কোন রকম খাতির না। নারায়ণগঞ্জে হকার বসবে। এটা আমার নির্দেশ।’

গত ২৬ ডিসেম্বর নারাণগঞ্জের ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদ করে সিটি করপোরেশন ও পুলিশ। এরপর হকাররা শামীম ওসমানের কাছে গিয়ে এ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ চান। কিন্তু আইভী এ বিষয়ে অনঢ় এবং শামীম ওসমান হকারদের পক্ষ নেয়ায় তাকে ‘উল্টাপাল্টা’ না করতে বলেছেন তিনি।

সমাবেশে শামীম ওসমান বলেন, ‘আমার ছোট বোন আইভী। তার জন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ আইভীকে হেদায়ত দান করুক।’

আইভীকে উদ্দেশ্য করে শামীম আরও বলেন, ‘হকারদের পেটে লাথি দেবেন আর সেই কারণে আমার নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে তারা গালিগালাজ করবে- সেটা হবে না।’

‘আমার নেত্রী খেঁটে খাওয়া মানুষের গালি খাওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী হননি। সাধারণ মানুষের রুটি রুজি কেড়ে নেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী হননি। মানুষের পিঠের ছাল তুলে দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী হননি।’

‘অন্যায় করবেন আপনি আর গালি খাবেন আমার নেত্রী তা হবে না নারায়ণগঞ্জে।’

শামীম ওসমান বলেন, ‘পুলিশ প্রশাসন আমাদেরই। কারণ আমরা সরকারি দলে। কিন্তু আমি হকারদের পাশে রাজনীতি করতে আসিনি। রুটি রুজির ব্যবস্থা না করতে পারলে কইরেন। কিন্তু রুটি রুজি কেড়ে নিয়েন না। দাম্ভিকতা অহংকার ভাল না। দাম্ভিকতা অহংকারীকে আল্লাহ পছন্দ করেন না।’

হকারদের কাউকে চাঁদা না দেয়ার আহ্বানও জানান শামীম ওসমান। বলেন, ‘কাউকে চাঁদা দেবেন না। যেই হোক কোন মাস্তান হোক, সরকারি-বেসরকারি যেই হোক কাউকেই চাঁদা দেবেন না। কেউ চাঁদা নিতে আসলে আগে বেঁধে আমাকে খবর দেবেন।’

হকারদের নেতা আসাদুজ্জামান আসাদ, সিপিবি সভাপতি হাফিজুল ইসলাম ও আবদুর রহিম মুন্সী প্রমুখ সমাবেশে বক্তব্য দেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।